খাঁটি ঘি কিভবে চিনবেন

খাঁটি ঘি কিভবে চিনবেন?

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

খাবারের স্বাদ বাড়ানোর জন্য ঘি-এর বিকল্প বর্তমান বাজারে খুঁজে পাওয়া অনেকটাই কঠিন। তবে ঘি খাটি কিনা এটি নিয়ে চলে সর্বদাই বাকবিতণ্ডা। বাজারে গিলে প্রতিটি কোম্পানিই তাদের নিজেদের পণ্য ১০০% খাঁটি বলে চালিয়ে দেয়। তবে বাজারের সকল ঘি-ই খাটি না। এতে থাকে ভেজাল যা বেশ কয়েকবার প্রমাণ ও হয়েছে। বর্তমানে খুবই কম বাড়িতে ঘি বানানো হয়। তাই শেষ পর্যন্ত বাজারই হয় শেষ ভরসা।

 

বাজারে সাধারনত যে ঘি পাওয়া যায় সেগুলো অধিকাংশ সময়ই পাম অয়েল ও ডালডা মেশানো থাকে। এবং ঘ্রাণের জন্য কিছুটা খাঁটি ঘি মেশানো হয়। সাথে অনেক সময় মহিষের দুধের ঘিয়ে রঙ দিয়ে গাওয়া ঘি বলে চালিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু এসব ঘি তৈরীতে ব্যবহৃত রঙ স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর এবং খাওয়ার উপযোগী নয়।

খাঁটি ঘি কিভাবে চিনবেন?

  • হাতের তালুতে রাখুন

খাঁটি ঘি চেনার সবচেয়ে সহজ উপায় হলো হাতের তালুতে রেখে পরীক্ষা করা। হাতে ঘি রাখার পরে শরীরের তাপে ঘি গলে গেলে বুঝতে হবে এতে ভেজাল নেই।

  • চুলোয় তাপ দিন

বাড়িতে ঘি এনে চুলোয় তাপ দিয়ে সহজেই বুঝতে পারবেন ঘি খাঁটি কিনা! যদি দেখেন ঘি গলতে সময় নিচ্ছে এবং হলদে হয়ে যাচ্ছে তাহলে বুঝতে হবে ঘি খাঁটি নয়।

  • গরম পানির মাধ্যমে

যেহেতু অধিকাংশ ক্ষেত্রে পাম তেল ও ডালডা ব্যবহার করে ঘি প্রসেস করা হয় তাই প্রথমে একটি পাত্রে পানি গরম করে নিন। তাতে ঘিয়ের বোতল বসিয়ে দিন। ভেতরের ঘি অল্পসময়ের মধ্যে গলে যাবে। এবার ঘিয়ের পাত্র ফ্রিজে রেখে দিন। যদি গোটা বোতলে একই রঙের ঘি জমাট বাধা থাকে তবে সেটি খাঁটি। ভেজাল ঘি এর ক্ষেত্রে তেলের আলাদা আলাদা স্তর হয়ে যাবে।

ভেজাল ঘি স্বাস্থ্যসম্মত নয়। তাই সম্ভব হলে বাড়িতেই ঘি বানিয়ে নেওয়া ভালো। তবে একান্ত সম্ভব না হলে সতর্কতার সাথে যাচাই করে কিনুন।

শেয়ার করুন: