গাইবান্ধার উপনির্বাচনে ১২৪২ সিসি ক্যামেরা স্থাপন

গাইবান্ধার উপনির্বাচনে ১২৪২ সিসি ক্যামেরা স্থাপন

নিউজ ডেস্ক :

ভোটের সঠিক পর্যবেক্ষণ ও সহিংসতা এড়াতে গাইবান্ধা-৫ আসনের উপনির্বাচনে ১৪৫টি ভোটকেন্দ্রে ১ হাজার ২৪২টি সিসি ক্যামেরা স্থাপন করছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ইতোমধ্যেই ১২০টি কেন্দ্রে ক্যামেরা স্থাপনের কাজ শেষ হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নির্বাচন কমিশনের আইডেন্টিফিকেশন সিস্টেম ফর এনহ্যান্সিং এক্সেস টু সার্ভিসেস আইডিইএ (২য় পর্যায়) প্রকল্পের উপপ্রকল্প পরিচালক (কমিউনিকেশন) স্কোয়াড্রন লিডার শাহরিয়ার আলম।

তিনি বলেন, আগামী ১২ অক্টোবর গাইবান্ধা-৫ আসনের উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এতে ৩ লাখ ৩৯ হাজার ৭৪৩ জন ভোটার ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন ইভিএমের মাধ্যমে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাবেন।

শাহরিয়ার আলম জানান, প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে এবং কক্ষে সিসি ক্যামেরা থাকবে। এ নির্বাচনী এলাকার ১৪৫টি ভোটকেন্দ্রের অভ্যন্তরে ২টি এবং প্রতিটি ভোটকক্ষের ভেতর (গোপন বুথের দৃশ্য ব্যতীত) ৯৫২টিসহ সব মিলিয়ে ১ হাজার ২৪২টি সিসিক্যামেরা স্থাপন করা হবে। এছাড়া, ভোটের দিন ও ভোটের আগের দিনের দৃশ্য সরাসরি পর্যবেক্ষণের জন্য ঢাকার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে একটি পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করা হবে।

তিনি আরও বলেন, সাঘাটা উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়ন এবং ফুলছড়ি উপজেলা গজারিয়া, ফুলছড়ি, এরেন্ডাবাড়ী, ফজলুপুর ইউনিয়ন চরাঞ্চল ও দুর্গম হওয়ায় ওই এলাকাগুলোতে জিএসএম রাউটার ব্যবহার করে সিসি ক্যামেরা পর্যবেক্ষণ কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

কুমিল্লা সিটি ভোটে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের মাধ্যমে সঠিক পর্যবেক্ষণ ও সহিংসতা এড়ানো সম্ভব হয়েছে বলে জানায় ইসি।

গত জুলাইয়ে সংসদের সাবেক ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বি মিয়ার মৃত্যুতে সাঘাটা উপজেলার ১০টি ও ফুলছড়ি উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত গাইবান্ধা-৫ সংসদীয় আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।

ভয়েসনিউজ/এনআই

শেয়ার করুন: