ঠাকুরগাঁওয়ে বাসচাপায় একই পরিবারের ৩জন নিহত

ঠাকুরগাঁওয়ে বাসচাপায় একই পরিবারের ৩জন নিহত

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :

ঠাকুরগাঁওয়ে যাত্রীবাহী একটি বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেলে থাকা একই পরিবারের বাবা, মা ও মেয়ে নিহত হয়েছে। ২৭ নভেম্বর রোববার সকাল ৯টার দিকে জেলার সদর উপজেলার রহিমানপুর ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর বিলডাঙ্গী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- সদর উপজেলার রহিমানপুর ইউনিয়নের মুথরাপুর গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদের ছেলে মাসুদুর রহমান (৫৫), তার স্ত্রী হামিদা বেগম (৪৫) ও মেয়ে মেহের নেগার সিমি (১৪)। সিমি স্থানীয় মাদরাসাতুল হুদা আল ইসলামিয়া আল সালাফিয়্যাহ মাদরাসার অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, মেয়ের বার্ষিক পরীক্ষা শুরু হওয়ায় স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে হরিহরপুরের মাদরাসাতুল হুদা আল ইসলামিয়া আল সালাফিয়্যাহ মাদরাসার উদ্দেশে রওনা হয়েছিলেন মাসুদুর রহমান। বিলডাঙ্গী এলাকায় পৌঁছলে বালিয়াডাঙ্গী থেকে ছেড়ে আসা দ্রতগামী হানিফ পরিবহনের একটি বাস মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়।

এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান হামিদা বেগম। মাসুদুর রহমান ও তার মেয়ে সিমিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাদেরকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবরটি নিশ্চিত করেছেন ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন। তিনি বলেছেন, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে যাই। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

ঠাকুরগাঁও ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন মাস্টার সারোয়ার হোসেন জানান, সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। ঘটনাস্থলে মেয়েটির মা মারা যান। আর মেয়ে ও বাবাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক শিহাব মাহমুদ সুজন বলেন, বাবা-মেয়েকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তবে হাসপাতালে আনার আগেই তারা মারা যান।

শেয়ার করুন: