পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচন

‘পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচন আগামী ১৫ আগস্টের পর’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২০২৩ সালের ১৫ আগস্টের পর। এর আগে আগামী এপ্রিলে অনুষ্ঠিত হবে স্থানীয় সরকার (এলজি) নির্বাচন।

২৫ ডিসেম্বর রোববার কায়েদে আজমের জন্মদিন ও বড়দিন উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে দেশটির অর্থনৈতিকবিষয়ক ফেডারেল মন্ত্রী আয়াজ সাদিক নির্বাচন নিয়ে এ ঘোষণা দেন।

আয়াজ সাদিক বলেন, ২০২৩ সালেই জাতীয় নির্বাচন হবে। তবে প্রথম স্থানীয় সরকার নির্বাচন (এলজি) অনুষ্ঠিত হবে। এরপর ১৫ আগস্টের পর জাতীয় নির্বাচন।

বিধানসভাগুলো ভেঙে দেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান যদি বিধানসভাগুলো ভেঙে দিতে চান তবে তারিখ দেওয়ার পরিবর্তে তার অবিলম্বে এটি করা উচিত ছিল।

মন্ত্রী বলেন, খান তার শাসনামলে ব্যাপক ঋণ নিয়েছিলেন এবং সেই ঋণের কারণে দেশে ব্যাপক মুদ্রাস্ফীতি ঘটে।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আগাম নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে আসছেন। দেশটির ফেডারেল সরকারকে চাপে ফেলতে তিনি সম্প্রতি দুটি প্রাদেশিক পরিষদের আইনসভা ভেঙে দেওয়ার হুমকিও দেন। ইমরান খানের দল পিটিআই নিয়ন্ত্রিত পাঞ্জাব ও খাইবার পাখতুনখাওয়ার প্রাদেশিক আইনসভা ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

ইমরান খানের এ পদক্ষেপে দেশটি নতুন ঝুঁকিতে পড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন: