বসকে

কর্মীর যে ৫ কাজ বসকে খুশি করে

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

বস মানে হলো দলনেতা। তিনি তার অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা দিয়ে পুরো টিমকে এগিয়ে নিতে চান। তাই কাজ দিয়ে বসের মন জয় করা অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু বেশিরভাগ কর্মীই এক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়। কোন কাজগুলো করলে বস খুশি হবেন সে বিষয়ে ধারণা থাকে না বেশিরভাগ কর্মীরই। তাই চলুন জেনে নেওয়া যাক বসকে খুশি করার জন্য আপনি কোন কাজগুলো করতে পারেন-

নির্দেশনাগুলো লিখে রাখুন

কর্মক্ষেত্রে আপনি কী কী শিখলেন তা নোট করে রাখার অভ্যাস করুন। বসের নির্দেশনাগুলো মনে রাখলে কাজ করা সহজ হবে। যেকোনো বিষয় একবার বলার পর আবার তা জানার জন্য আপনি নিশ্চয়ই তাকে বারবার বিরক্ত করতে পারবেন না। তাই নির্দেশনাগুলো লিখে রাখুন। এতে কাজ তো সহজ হবেই সেইসঙ্গে আপনি দক্ষ ও মনোযোগী হতে পারবেন।

বসের যোগাযোগ দক্ষতা খেয়াল করুন

বসের যোগাযোগ দক্ষতা খেয়াল করুন এবং আপনিও সেভাবে চেষ্টা করুন। তিনি কীভাবে কাজ করেন এবং নিজস্ব ভাবনাগুলো প্রকাশ করেন তা শিখে নিন। এতে আপনার কাজের প্রতি বসের মুগ্ধতা বৃদ্ধি পাবে। কখন কোন পরিস্থিতি কীভাবে সামাল দিতে হবে তা শিখে নিন। এতে বস নিশ্চয়ই খুশি হবেন।

ফলো-আপ মেইল পাঠান

বস মানেই অনেক ব্যস্ততা। যে কারণে তাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ ভুলে যাওয়াও অসম্ভব কিছু নয়। তাই এসব ক্ষেত্রে আপনি তাকে একটি ফলো-আপ মেইল পাঠাতে পারেন। এতে ভুলে গেলেও আপনার মেইল পাওয়ার পর পুরো বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হতে পারবেন। কাজের প্রতি আপনার একাগ্রতা তাকে মুগ্ধ করবে নিশ্চয়ই।

সবাইকে সাহায্য করুন

নিজের অবস্থান এমনভাবে তৈরি করুন যেন সবাই আপনার কাছে সাহায্যের জন্য আসে। যদি আপনি সংশ্লিষ্ট বিষয়ে নাও জানেন, সেটিও তাদের বলুন। আপনার কাছে অন্যদের কোনো কাজ শিখতে চাওয়া বা জানতে চাওয়ার আগ্রহকে এড়িয়ে যাবেন না। আপনার এই গ্রহণযোগ্যতা বসের কাছে আপনার অবস্থান আরও শক্ত করবে।

সব সময় পরিকল্পনা রাখুন

দক্ষ কর্মীদের ক্ষেত্রে বস সব সময় খেয়াল করেন যে কাজ নিয়ে তার কোনো পরিকল্পনা আছে কি না। কাজের ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা তৈরি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে যদি আপনি সমাধান ও পরবর্তী পরিকল্পনা দিয়ে দেন তবে আপনার কর্মদক্ষতারই প্রমাণ মিলবে। দ্রুত ও সহজ সমাধান করার এই স্বভাব বস নিশ্চয়ই পছন্দ করবেন। টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে

ভয়েসনিউজ/এনএন

শেয়ার করুন: