বাংলাদেশ আজকে একটি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে: মোশাররফ

বাংলাদেশ আজকে একটি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে: মোশাররফ

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বাংলাদেশ আজকে একটি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে দাবি করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

তিনি বলেছেন, রক্তের বিনিময়ে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা যে গণতন্ত্র অর্জন করেছিলাম, সেই গণতন্ত্র আজ ভুলুণ্ঠিত। মানুষের মৌলিক অধিকার ও ভোটের অধিকার নেই।

বর্তমান সরকারের লুটপাট, দুর্নীতি ও বিদেশে টাকা প্রচার করার কারণে দেশের অর্থনীতি ধ্বংস হয়ে গেছে বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এই নেতা।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশে সাম্য প্রতিষ্ঠিত হবে, অর্থনৈতিক বৈষম্য দূর হবে। গত ১৪ বছরে গায়ের জোরের সরকার দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করে দিয়েছে।

১ জানুয়ারি রোববার সন্ধ্যায় রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে অস্থায়ী মঞ্চে ছাত্রদলের ৪৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত ছাত্র সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আজ বাংলাদেশ যে জায়গায় দাঁড়িয়েছে তাতে সরকারের বিদায় ছাড়া কোনো উপায় নেই। তাই ইতিহাসের ক্রমধারায় এবারও ছাত্রদের সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে হবে। ছাত্র-যুবকদের গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে এই সরকারকে বিদায় করতে হবে।

তিনি বলেন, বিএনপির ১০ দফার প্রথম দফা হচ্ছে এই সরকারের পদত্যাগ। কিন্তু আপনারা জানেন, স্বৈরাচার কখনও আপসে ক্ষমতা ছাড়ে না। অতত্রব তাদেরকে ক্ষমতা ছাড়তে বাধ্য করতে হবে। তাই আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেছেন, ফয়সালা হবে রাজপথে। রাজপথে থাকতে হবে। আর রাজপথের অতীত ইতিহাস থেকে আমরা জানি, ১৯৬৯ সালে পাকিস্তান আমলে এই দেশের ছাত্র সমাজ এবং জনগণ ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণঅভ্যুত্থান করে আইয়ুব খানের পতন ঘটিয়েছিলো। স্বৈরশাসক এরশাদকেও ছাত্রদলের নেতৃত্বে সব ছাত্রসমাজ ঐক্যবদ্ধ হয়ে পতন ঘটিয়েছে।

ছাত্রদলের সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবনের সভাপতিত্বে ছাত্র সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাবেক সভাপতি শামসুজ্জামান দুদু, আমান উল্লাহ আমান, ড. আসাদুজ্জামান রিপন, নাজিম উদ্দিন আলম, আজিজুল বারী হেলাল প্রমুখ।

শেয়ার করুন: