shakib bubly

শাকিব–বুবলীর সাত বছরে যা ঘটল

বিনোদন ডেস্ক :

টেলিভিশনের সংবাদ উপস্থাপিকা থেকে ঢালিউডের অভিনেত্রী হয়েছেন শবনম বুবলী। তবে ২০১৬ সালে ঢাকার সিনেমার অন্যতম শীর্ষ অভিনেতা শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েই রাজি হয়ে গেছেন, বিষয়টি কিন্তু তেমন নয়। চলচ্চিত্রে কাজ করার ব্যাপারে বুবলীর নিজের তেমন আগ্রহ ছিল না, তার পরিবারেরও মত ছিল না। পরে ‘বসগিরি’র প্রযোজকের অনুরোধে মা–বাবা মত দেয়। কিন্তু তার দুই বোন কোনোমতেই বুবলীকে সিনেমায় অভিনয় করতে দিতে রাজি ছিলেন না। তাদের অমতে গিয়েই কাজ শুরু করেন বুবলী। সাত বছর আগে ২০১৬ সালে ‘বসগিরি’ ছবি দিয়ে শুরু হয় শাকিব-বুবলী জুটির প্রেমের রসায়ন। বসগিরির সেটেই শাকিব–বুবলীর প্রেম শুরু বলে জানিয়েছে ছবিটির সঙ্গে যুক্ত একটি সূত্র।

বসগিরি ছবিটি মুক্তি পেলে এটি দারুণ ব্যবসা করে। এই সুপারহিট হওয়ার পর একের পর এক ছবির প্রস্তাব আসতে থাকে। অপু বিশ্বাসের পর শাকিবের নতুন জুটি হন বুবলী। একই বছর মুক্তি পায় ‘শুটার’। পরের বছর আরও দুটি—‘রংবাজ’ ও ‘অহংকার’। ২০১৮ সালে তিনটি—‘চিটাগাংইয়া পোয়া নোয়াখাইল্লা মাইয়া’, ‘সুপার হিরো’ ও ‘ক্যাপ্টেন খান’। ২০১৯ সালে ‘পাসওয়ার্ড’ ও ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’। একজনের সঙ্গেই এত ছবি কেন? স্বভাবতই শাকিব ও বুবলী দুজনকেই করা হয় এ প্রশ্ন। বুবলী তখন জানিয়েছিলেন, অন্যান্য নায়কের সঙ্গে ছবি করতে আপত্তি নেই। করছেন না ‘ব্যাটে–বলে’ মিলছে না বলে।

২০১৯ সালে দুই ছবির গানের শুটিংয়ে তুরস্কে যান শাকিব ও বুবলী। ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ও ‘পাসওয়ার্ড’ ছবির গানের শুটিংয়ে জন্য তুরস্ক তারা ছিলেন আট দিন। ওই শুটিং ইউনিটের একটি সূত্র জানিয়েছে, তুরস্কে শুটিংয়ের সময় ঘনিষ্ঠতর হয় তাদের সম্পর্ক। সূত্রটি আরও জানায়, ‘বসগিরি’ দিয়ে সম্পর্ক শুরু হলেও মাঝে বেশ কয়েকবার নানা কারণে তাদের মধ্যে দূরত্ব তৈরি হয়। তবে দূরত্ব তৈরি হলেও পেশাদারি মনোভাব নিয়ে একসঙ্গে ছবি করেছেন তারা। কিন্তু তুরস্কে একাকার হয়ে যায় পর্দা আর বাস্তব প্রেম। সূত্রটি জানায়, তুরস্ক থেকে ফেরার পরই অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন বুবলী।

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে মুক্তি পায় শাকিব-বুবলীর ‘বীর’। ছবি মুক্তির আগে থেকেই অবশ্য বুবলী লাপাত্তা। ছবি মুক্তির আগে ‘বীর’–এর চেয়ে ‘বীর’–এর নায়িকার খোঁজ না পাওয়া নিয়েই আলোচনা হয় বেশি। সে সময় ছবির নায়ক বা প্রযোজক কেউই জানাতে পারেননি তাদের নায়িকার খবর। বুবলী অন্তঃসত্ত্বা, ঘটনা আড়াল করতে দেশের বাইরে গেছেন তিনি—এমন গুজবও তখনই রটে। এমনও শোনা যায়, সন্তান প্রসবের জন্য বুবলীকে দেশের বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছেন শাকিব খান। গণমাধ্যমকে তখন শাকিব বলেছিলেন, ‘যারা এ নিয়ে মাতামাতি করছেন, তারা গুজবটা ক্যাশ করতে চান, নিজেদের টিআরপি বাড়াতে চান। আমি যদি এটা নিয়ে কথা বলি, যারা গুজব রটাচ্ছেন, তাদের পাত্তা দেওয়া হয়ে যাবে। সুতরাং যার যা ইচ্ছা, করতে থাকুক। দেখবেন, একসময় আপনা-আপনি এই রটনা বন্ধ হয়ে গেছে।’

প্রায় সাড়ে ৯ মাস আড়ালে থাকার পর গত বছরের জানুয়ারিতে আবার প্রকাশ্যে আসেন বুবলী। মা হওয়ার গুঞ্জন নিয়ে তখন তিনি গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, ‘আমরা যারা বিনোদন অঙ্গনে কাজ করি, তাদের ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে অনেকে অনেক কিছু জানতে চান। সেই চাওয়া ও আগ্রহকে অবশ্যই সম্মান করি। তাই বলে অনেক কল্পকাহিনি শুনে আপনারাও একতরফাভাবে বাছবিচার করে ফেলবেন না যেন। গল্পের পেছনেও অনেক গল্প থাকে, তাই আমরা আপাতত ওসবে কান না দিই।’ একই সাক্ষাৎকারে ২০ কেজির বেশি ওজন ঝরানোর কথাও জানান বুবলী।

দেশে ফেরার পর, বলা যায়, নতুনভাবে ক্যারিয়ার শুরু করেন বুবলী। আগে শাকিব ছাড়া কাজ না করলেও গত দেড় বছরে তাকে জিয়াউল রোশান, আদর আজাদ, সাইমনের সঙ্গে কাজ করতে দেখা যায়। চলতি বছর ওয়েব ছবি ‘টান’–এ তাঁর অভিনয় প্রশংসিত হয়। শাকিবের সঙ্গে তার আরেক ছবি ‘লিডার: আমি বাংলাদেশ’–এর শুটিং করছেন।

বুবলী সন্তানের জন্ম দিয়েছেন—গত কয়েক মাসে এই আলোচনাও অনেকটা কমে যায়। কিন্তু গত ২৭ সেপ্টেম্বর নিজের ফেরিফায়েড ফেসবুকে বেবি বাম্পের ছবি দিয়ে চমকে দেন বুবলী। বুবলী পোস্টে লিখেছেন, ‘আমি আমার জীবনের সঙ্গে। ফিরে দেখা আমেরিকা।’ এর পর থেকেই নতুন করে শুরু হয় গুঞ্জন। একই দিন পরে সাংবাদিকদের বুবলী বলেন, ‘অনুগ্রহ করে সবকিছু না জেনে ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে সংবাদ করবেন না। সবকিছুর পেছনে অবশ্যই ব্যাখ্যা আছে। আমি কয়েক দিনের মধ্যেই আপনাদের পরিষ্কার করব।’

অবশেষে ৩০ সেপ্টেম্বর শুক্রবার এলো সেই সময়। শাকিব খান ও বুবলী দুজনই জানান, ২০২০ সালের ২১ মার্চ যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ড জ্যুইশ মেডিকেল হাসপাতালে পুত্রসন্তানের জন্ম দেন বুবলী। সন্তানের নাম শেহজাদ খান, ডাকনাম বীর। শাকিব ও বুবলী অভিনীত একটি ছবির নামও ‘বীর’। যে ছবি মুক্তির আগেই আড়ালে চলে যান অভিনেত্রী।

শেহজাদ খানের সঙ্গে ছবি দিয়ে আলাদা আলাদা ফেসবুক পোস্ট দিয়েছেন শাকিব খান ও বুবলী। কিন্তু ওই পোস্টে কেউই তাদের বৈবাহিক অবস্থা পরিষ্কার করেননি। কবে তাদের বিয়ে হয়েছে, সে সম্পর্কে দুজনের কেউ স্পষ্ট করেন নি।

ভয়েসনিউজ/এনআই

শেয়ার করুন: