স্বামীর কাছে নিজেকে প্রিয় করার উপায়

স্বামীর কাছে নিজেকে প্রিয় করার উপায়

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

বিয়ের পরে বিভিন্ন সমস্যা তৈরী হতেই পারে। কেননা নতুন বাড়ি, নতুন মানুষ। বিয়ের আগে তাদেরকে যেভাবে দেখেছেন বিয়ের পরে বিভিন্ন কারণেই তাদের মধ্যে পরিবর্তন আসতে পারে। এমনও হয় যেখানে ছোট্ট একটি ভুলেও তৈরি হয় বড় জটিলতা। ফলে আপনার মনে হতেই পারে, আপনার স্বামী বা প্রিয় মানুষটি আপনাকে দেখতে পারেনা।

এরকম পরিস্থিতিতে অনেকেই ভেঙে পড়েন। কেহ আবার পড়ে যায় হতাশার মধ্যে। তবে চিন্তা করার কোন দরকার নেই কেননা এমন সহজ কিছু পদ্ধতি আছে যেগুলো মেনে চললেই দ্রুতই এ ধরণের সমস্যা থেকে মুক্তি পেয়ে। আপনার প্রিয় মানুষটির কাছে আরো প্রিয় হয়ে যাবেন।

যেভাবে স্বামীর কাছে নিজেকে প্রিয় করবেন-

মনোযোগ গিয়ে শুনুন
অবশ্যই মনে রাখতে হবে আপনারা বিবাহ করেছেন। এখন একে অপরকে রেখে এগিয়ে যাওয়া মোটেও সহজ না। হতে পারে আপনার স্বামীর অভিযোগ রয়েছে কিন্তু আপনি সেগুলো পাত্তা দেননি। ফলে সেই অভিযোগগুলো একটি সময় বড় ধরণের জটিলতা দূর করে। তাই আগে অভিযোগগুলো শুনুন, পরে সমাধানের জন্য চেষ্টা করুন।

কথা বলার চেষ্টা করুন
আপনি একা-একা সব কিছু বুঝে নিতে পারবেন না। সেক্ষেত্রে আপনাকে কথা বলতে হবে। আপনার উচিৎ হবে সঠিকভাবে প্রশ্ন করা, তবেই বড়সড় জটিলতা থেকে সহজে রক্ষা পাওয়ার রাস্তা খুজে পাবেন। তাই চেষ্টা করুন কথা বলতে। আপনার স্বামীকে জিজ্ঞাস করুন কি সমস্যা, কেন সমস্যা এরকম বিষয়গুলি। তবেই তো আপনি মূল সমস্যাটা জানতে পারবেন এবং সবকিছু পরিষ্কার হয়ে যাবে আপনার কাছে।

নিজের সম্পর্কে জানুন
প্রতিটি মানুষের ভুল রয়েছে। আপনার ভুল থাকাটাও অস্বাভাবিক কোন ঘটনা নয়। তাই সবার আগে নিজেকে বুঝুন। নিজের ভুলগুলো কি তা বোঝার চেষ্টা করুন এবং কেন ভুল করেছেন ইত্যাদি। এভাবেই সমস্যা খুঁজে বের করতে পারলেই দেখবেন সকল জটিলতা দূর হয়ে যাবে। শুধু আপনার স্বামীর কাছে নয় সকলের কাছেই প্রিয় হয়ে উঠবেন।

​অন্য ঘটনা নয় তো?
অনেক স্বামীর ভিন্ন আচরণ অন্য বার্তাও হতে পারে। তাই তার ব্যবহারের পিছনের বিষয়টাও খেয়াল রাখতে হবে। সেগুলোকেও সমাধান করতে হবে।

​নিজেদের সময় দিন
বর্তমান সময়ে স্বামী-স্ত্রী দু’জনেই চাকরি করেন। যার কারণে সময় পাওয়া খুবই কঠিন হয়ে দাড়ায়। তবে ব্যস্ততার মধ্যেও নিজেদের জন্য সময় খুঁজে বের করে নিতে হবে। তাই চেষ্টা করুন যতটা দ্রুত সম্ভব নিজেদের জন্য সময় বের করা। কোথাও ঘুরতে যান। নিজেদের সময় দেন। দেখবেন পূর্বের চেয়ে অনেক ভালো আছেন।

শেয়ার করুন: